News Headline :
ইতিহাসের পাতায় এই প্রথমবার, সম্প্রচার হলো অমরনাথ ধামের আরতি, রইলো ভিডিও হু এর বিরুদ্ধে কঠোর পদক্ষেপ নিলো ট্রাম্প, সমস্ত সম্পর্ক ছিন্ন করার মুখে আমেরিকা! “ভে’ঙে পড়েছেন করণ জোহার, সারাদিন কাঁদছেন তিনি ” – করণ জোহরকে নিয়ে বড় তথ্য ফাঁ’স করলেন করণের বন্ধু Big News- বাংলার সমস্ত কন্টেনমেন্ট জোনে চলবে টানা সাত দিনের কড়া লকডাউন ফের নিন্মচাপ, নদীয়া সহ পাঁচ জেলার আবহাওয়ার বড় আপডেট দিলো আবহাওয়া দপ্তর রাতভর ভারত-চিন সীমান্তে হুংকার ছাড়লো ভারতীয় বায়ুসেনার অ্যাপাচি হেলিকপ্টার, রইল ভিডিও এবছর কি হবে স্নাতক-স্নাতকোত্তরের পরীক্ষা? স্পষ্ট না জানালেও ইঙ্গিত দিলেন শিক্ষামন্ত্রী ফের নিম্মচাপের ধা’ক্কা বাংলায়, হুগলি-নদীয়া সহ পাঁচ জেলায় ভারী বৃষ্টিপাতের সম্ভবনা জানালো আবহাওয়া দপ্তর জিও থেকে গ্রাহক টানতে কম দামে দারুন প্ল্যান লঞ্চ করলো এয়ারটেল, এবার পাবেন আনলিমিটেড কল সহ ডেটা করোনা নিয়ে বড় ঘোষণা সৌরভের, করোনা নিয়ে আশঙ্কার কথা শোনালেন সৌরভ গাঙ্গুলি
কতবার হ*স্ত -মৈ*থুন করলে কোন ক্ষতি হবে না? চা*ঞ্চ*ল্য*কর তথ্য দিলো ডাক্তাররা

কতবার হ*স্ত -মৈ*থুন করলে কোন ক্ষতি হবে না? চা*ঞ্চ*ল্য*কর তথ্য দিলো ডাক্তাররা

হস্ত*মৈ*থুন কি? ব্যাপারটির সাথে আমরা সবাই কমবেশি পরিচিত। উঠতি বয়সের ছেলেদের মাঝে এর প্রবনতা বেশি দেখা গেলেও পুরুষদের মত নারীদের কিংবা মাহিলদের এমনকি কম বয়সী মেয়েদের মাঝেও হ*স্ত মৈ*থুন প্রবনতা থাকে।

হ*স্ত মৈ*থুন প্রসঙ্গে নানান রকমের কু-সংস্কার ও ভুল ধারণা রয়েছে। অনেকেই মনে করেন হস্ত*মৈ*থুন এর কোনো অপকারিতা বা ক্ষতি কিংবা কুফল নেই। আবার কেউ কেউ মনে করেন হ*স্তমৈ*থন এর উপকারিতা আছে।

হ*স্তমৈ*থুন, বর্তমানে ইয়ং ছেলে দের কাছে একটি বড় সমস্যা। চিকিত্‍সা বিজ্ঞান বকে নির্দিষ্ট পরিমাণে হস্তমৈথুন শরীরের পক্ষে ভালোই। কিন্তু সেই নির্দিষ্ট পরিমানের বাইরে হ*স্তমৈ*থুন খুবই খারাপ শরীরের পক্ষে। আমাদের মধ্যে অনেকেই এই অতিরিক্ত হস্ত*মৈ*থুনে অভ্যস্ত। হ*স্তমৈ*থুন এমন একটি অভ্যাস যা একবার কাউকে পেয়ে বসলে তা ত্যাগ করা খুবই কষ্টকর হয়ে দাঁড়ায়।

আরও পড়ুন-যৌ*নক্ষ*মতা দ্রুত বাড়াবার জন্য রাজা মহারাজারা যে জিনিস ব্যবহার করতেন, অনেক সময় ধরে মিলন

হ*স্তমৈথুন বা মাস্টা*রবে*শন কী? ব্যাপারটির সঙ্গে প্রায় সবাই কম-বেশি পরিচিত।অনেকেই মনে করেন, হ*স্তমৈথুন করলে কোনো অপকার বা ক্ষতি হতে পারে। আবার কেউ কেউ মনে করেন হ*স্তমৈ*থুনের উপকারিতা আছে।

চিকিৎসকদের মতে, উঠতি বয়সের ছেলেদের মধ্যে এর প্রবণতা বেশি দেখা গেলেও, পুরুষদের মতো মহিলাদের, এমনকী কম বয়সি মেয়েদের মধ্যেও হস্ত*মৈ*থুনের প্রবণতা থাকে। হ*স্তমৈ*থুন কোনো রোগ বা কোনো অপরাধজনিত কাজ নয়। বরং একেবারে স্বাভাবিক জৈবিক প্রবৃত্তি। তা হলে জেনে নেওয়া যাক হ*স্তমৈ*থুনের উপকারিতা সম্পর্কে।হ*স্তমৈ*থুন কোনও রোগ বা অপরাধপ্রবণতা নয়, একদম স্বাভাবিক জৈবিক প্রবৃত্তি। বিভিন্ন বিশেষজ্ঞের মতামত ও গবেষণা অনুযায়ী হ*স্তমৈ*থুনের পাঁচটি শারীরিক উপকারিতা দেখে নেওয়া যাক এক নজরে।

তবে মূল বিষয়টি হচ্ছে, হ*স্তমৈ*থুন তখনই স্বাস্থ্যের জন্য ভালো যখন তা করে হবে নিয়ন্ত্রিত মাত্রায়। তাহলে দৈনিক কতবার হ*স্তমৈ*থুন করা যেতে পারে? চিকিত্‍সা বিজ্ঞানে হ*স্ত মৈ*থুন করার নিয়ম বা হ*স্ত মৈ*থুন এর বিধান কি? এতে কি পুরুষত্ব নিয়ে বা স্ত্রীর সাথে যৌ*ন জীবনে কোন সমস্যা হয়?এছাড়াও সকলের একটি প্রশ্ন সব সময় অজানা থাকে। তা হলো হ*স্তমৈ*থন এর উপকারিতা কি এবং অপকারিতা কি? আজকে আমরা এসেছি সে প্রশ্নের সঠিক উত্তর নিয়ে। চলুন জেনে নেই হ*স্তমৈ*থন এর উপকারিতা কি এবং অপকারিতা সম্পর্কে:

আরও পড়ুন-বিবাহিত অল্পবয়সী নারীদের পরকীয়ায় জড়ানোর পাঁচ গো*প*ন কারণ

কখনো কখনো দিনে একাধিক বার অভ্যস্ত হয়ে পড়ে এই হ*স্তমৈ*থুনে। চিকিত্‍সকরা জানাচ্ছেন বার বার এই হ*স্তমৈ*থুনের ফলে পরবর্তী কালে যৌ-ন জীবনে অনেক সমস্যার সৃষ্টি হয়। তো এই বিষয়ে অনেক খবরই আপনারা জানেন। কিন্তু আজ এই প্রতিবেদনে আপনাদের জানাবো যে, কিভাবে এই অতিরিক্ত হ*স্তমৈ*থুনের ফলে হওয়া সমস্যা থেকে কিভাবে মুক্তি পাওয়া যেতে পারে। আসুন জেনে নিই বিস্তারিত।

অতিরিক্ত হ*স্তমৈ*থুনে অভ্যস্থ হয়ে পড়েছেন ? তাহলেই বিপদ ৷ হয়ত এতে খুবই মজা ও আরাম পাচ্ছেন ৷ কিন্তু দীর্ঘকালীন এই অভ্যাসে বিপদ অনিবার্য ৷ ভবিষ্যৎ অন্ধকার হ*স্তমৈ*থুন কোনও রোগ বা অপরাধপ্রবণতা নয়, একদম স্বাভাবিক জৈবিক প্রবৃত্তি। বিভিন্ন বিশেষজ্ঞের মতামত ও গবেষণা অনুযায়ী হস্তমৈথুনের পাঁচটি শারীরিক উপকারিতা দেখে নেওয়া যাক এক নজরে।

আরও পড়ুন-এলোভেরা যেভাবে রাতে মাত্র ৫ মিনিট ব্যবহার করলেই পাবেন ফর্সা, উজ্জল ও দাগমুক্ত ত্বক

হ*স্তমৈ*থুনের ৫টি উপকারিতা-
১। নিয়মিত হ*স্তমৈ*থুন করলে ঘুম ভালো হয়। হস্তমৈথুনে শরীরে শক্তিক্ষয় হয়, ফলে বী*র্যপাতের পরই ক্লান্ত লাগে। চোখ যেন জুড়ে আসে। চিকিৎসকরা তাই বলেন, হস্তমৈথুন অনিদ্রার ভালো ওষুধ।
২। হ*স্তমৈ*থুনের সময় পেলভিক জোনে বেশি রক্ত চলাচল করতে শুরু করে। সেখানকার পেশিগুলি সঞ্চালিত হয়। এটা শরীরের পক্ষে ভালো।
৩। নিয়মিত হ*স্তমৈ*থুন করলে বিছানায় বেশিক্ষণ টিকে থাকা যায়। কারণ, হ*স্তমৈ*থুনের সময় পুরুষরা বুঝতে পারে কতক্ষণে বী*র্যপাত হচ্ছে।

৩. নিয়মিত হ*স্তমৈ*থুন করলে বিছানায় বেশিক্ষণ টিকে থাকা যায়। কারণ, হ*স্তমৈ*থুনের সময় পুরুষরা বুঝতে পারে কতক্ষণে বীর্যপাত হচ্ছে। সেই মতো স্টার্ট-স্টপ পদ্ধতি ব্যবহার করে বা স্কুইজ পদ্ধতি অবলম্বন করে বী*র্যপাতে বিলম্ব ঘটানো সম্ভব। বিলম্বিত বী*র্যপাত আদতে সে*ক্সের সময় বিছানায় বেশিক্ষণ টিকে থাকতে সাহায্য করে।
৪। হ*স্তমৈ*থুন করলে রোগ প্রতিরোধ করার ক্ষমতা বাড়ে। হস্তমৈথুনের সময় টে*স্টো*স্টেরন হর*মো*নের ক্ষরণ বেড়ে যায়। এর ফলে শরীরের হাড় ও মাংসপেশি সবল হয়।

৫। প্রায় বেশিরভাগ মানুষই জটিল জীবনযাত্রার চাপে অবসাদে ভোগেন। অবসাদ দূর করতে হস্ত*মৈ*থুন গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা নেয়।
৬. হস্ত*মৈথুন করলে রোগ প্রতিরোধ করার ক্ষমতা বাড়ে। হস্ত*মৈথুনের সময় শরীরে ডিএইচইএ নামে একটি হরমোনের ক্ষরণ হয়। এই হরমোনটি রোগ-জীবাণুর বিরুদ্ধে লড়াইয়ে শরীরকে গড়ে তোলে। পাশাপাশি, হস্ত*মৈথুনের সময় টেস্টো*স্টে*রন হর*মো*নের ক্ষরণ বেড়ে যায়। এর ফলে শরীরের হাড় ও মাংসপেশি সবল হয়।

আরও পড়ুন-বিবাহিত মহিলারা ভুলেও এই পাঁচ গো*প*ন জিনিস কারোর সাথে শেয়ার করবেন না

৭. অবসাদ দূর করতে হস্ত*মৈ*থুন গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা নেয়। আজকালকাকালকার জটিল জীবনযাত্রায় অবসাদ থাকবেই। যদি মনে হয়, অবসাদের কারণে শরীর ম্যাজম্যাজ করছে বা মেজাজ তিরিক্ষি হয়ে আছে, তা হলে অবশ্যই হস্ত*মৈ*থুন করুন। ফুরফুরে লাগবে। এর কারণ এন্ডোরফিন্স নামে একটি হর*মো*নের ক্ষরণ।
হস্ত*মৈথুনের ফলে শরীর থেকে স্পা*র্ম বেরিয়ে যাওয়ার পরপরই শরীরে টেসটো*স্টেরন হরমোনের এক ধাক্কায় অনেকটা মাত্রা কমে যায় ৷ এই হরমোনই হজম ও পেশির জোর বাড়াতে সাহায্য করে ৷ ঘনঘন হস্ত*মৈ*থুনের ফলে টেসটো*স্টেরনের ওপর প্রভাব পড়ে ৷ ফলে হজম ক্ষমতা কমে ৷ পেশি দুর্বল হয় ৷ শরীরে সবসময় থাকে ঝিমঝিম ভাব ৷

তাই তো খুব বেশি হস্ত*মৈথুন কোনভাবে কাঙ্খিত নয় খুব ছোট বয়স থেকে হ*স্তমৈ*থুনের অভ্যাস তৈরি হলে শরীরে টোসটো*স্টে*রনের মাত্রা কম তৈরি হতে থাকে ৷ এই হর*মোন শরীরে কমতে থাকলে স্পা*র্ম কম তৈরি হতে থাকে ৷ সেই কারণেই সপ্তাহে দু থেকে তিনবার হস্ত*মৈ*থুন করার পরামর্শ দিয়ে থাকেন চিকিৎসকরা ৷ বেশি হস্ত*মৈথু*নের ফলে সন্তান জন্ম দেওয়ার ক্ষমতা কমতে পারে বলেই জানিয়েছেন চিকিৎসকরা ৷ কোনভাবেই সন্তান জন্ম দেওয়ার ক্ষেত্রে আপনার শরীর সাড়া দিতে পারবেন না ৷

এছাড়াও নিয়মিত হস্ত*মৈথু*নের ফলে আপনার চিন্তায় প্রভাব পড়ে ৷ দিনরাত শরীর নিয়েই চিন্তার ফলে কাজে মন হারাবেন ৷ এই অভ্যাস থেকে নিজেকে মুক্তি দিতে বন্ধুবান্ধবদের সঙ্গে বেশি মিশতে বলা হচ্ছে ৷ বলা হচ্ছে শরীরচর্চায় মন দিতে ৷ এছাড়াও প্রচুর পরিমাণ জল খাওয়ার পরামর্শও দেওয়া হচ্ছে ৷

আরও পড়ুন-নামে ভেতরে স্পাএর ব্যবসা, ভেতরে চলছে অবৈধ কার্যকলাপ , হাতে নাতে ধরা পড়ে ভাইরাল ভিডিও

চিকিত্‍সা বিজ্ঞানে দেখা গেছে যে, একবার বী*র্য* পা*তের জন্য যে সময় লাগে, তার জন্য প্রতি মিনিটে একজন পুরুষের খরচ হয় ৪.২ ক্যালরি, আর একটি মেয়ের প্রতি মিনিটে খরচ হয় ৩.১ ক্যালরি। এবার যত সময় ধরে হ*স্ত*মৈ*থু*ন হবে, তার সাথে এই সংখ্যাটা গুন করে মোট কতটা শক্তি খরচ হচ্ছে সেটা হিসেব করা যায়। এবার আমরা জানি যে, আমাদের শরীরে এই ক্যালরির গুরুত্ব কতটা। তাই মোটেই উচিত নয় এই ক্যালরি নষ্ট হওয়া। তাহলে হ*স্ত*মৈ*থু*নের ফলে নষত হওয়া এই ক্যালরির পূরণ কি করে সম্ভব?

চিকিত্‍সকরা বলেন যে, এই নষ্ট হওয়া ক্যালরি পুনরুদ্ধারের উপায় হচ্ছে পুষ্টিকর, ক্যালরি যুক্ত খাবার খাওয়া। কি সেই খাবার গুলি, দেখে নিন। চিকিত্‍সকরা বলেন যে, হ*স্ত*মৈ*থু*নে*র পর প্রচুর জল খেতে, এতে অনেক উপকার হয়। এছাড়া তারা আরও বলেন যে, দই খেতে। কারণ দই এ থাকে খুবই উচ্চ ক্যালরি। এক কাপ দইতে থাকে প্রায় ৯১০ ক্যালরি শক্তি।

তাই নষ্ট হয়ে যাওয়া ক্যালরি ফেরাতে এটি খুবই উপকারী বলে জানাচ্ছেন ডক্টররা। এছাড়াও বিভিন্ন ফল, ডিম, দুধ, ছোলা খাওয়ার পরামর্শ দিচ্ছেন তারা, যাদের খুব হ*স্ত-মৈ*থু*নে*র অভ্যাস আছে যাদের, তাদের জন্য। কিন্তু সবার আগে এই চেষ্টাটা করতে বলা হচ্ছে যে, পারলে নির্দিষ্ট পরিমানেই হ*স্ত-মৈ*থু*ন করার কথা। আর সেটা সম্ভব না হলে তখনই এই সব ব্যবস্থা গ্রহণ করার কথা বলছেন চিকিত্‍সকরা।

এবার আসা যাক, যারা হ*স্ত-মৈ*থুন ছেড়ে দিয়েছেন কিছুদিন হল, বা বেশ অনেকদিনই হল তাদের ক্ষেত্রে কি করা যেতে পারে। এই বিষয় টা নিয়ে বেশি ভাববেন না, কারণ আমাদের শরীর নিজে থেকেই এই ক্ষতি পুরন করে নেয়। কিন্তু তারপর ও আরও বেশি করে পুষ্টিকর খাবার খাওয়া উচিত। পুষ্টিকর বলতে বেশি করে ফল খান, এর সাথে দুধ, ডিম, মাছ, চিকেন, মধু এসব বেশি করে খান।ডাক্তার দের মতে সপ্তাহে ২বার এর বেশি করলে তার প্রভাব খারপ হবে।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply




© All rights reserved © 2019 bdkantho24.com