News Headline :
সোনার মাস্ক পরে ঘুরছেন ব্যক্তি, নেটদুনিয়ায় ভাইরাল এই মাস্কের দাম! চিনা পণ্য বয়কটের পথে হাঁটলো ‘হিরো’, চীনের সাথে 900 কোটির ব্যাবসার চুক্তি বাতিল করলো হিরো সাইকেল কোম্পানি! ‘চিনা সংস্থা স্পনসর’- নজিরবিহীন সিদ্ধান্ত নিয়ে সংবাদ শিরোনামে অভিনেতা জিৎ স্টেট ব্যাঙ্কের গ্রাহকদের জন্য- বদলে গেলো স্টেট ব্যাংকে ATM এ টাকা তোলার নিয়ম প্রবল ঘাম ঝরিয়ে শরীরচর্চা করছেন শ্রীলেখা, প্রকাশ্যে অভিনেত্রীর সেই বিশেষ ছবি শেষদিকে প্রবল অর্থকষ্টে ভো’গা সরোজ খানকে এই হু’মকি দিয়েছিলেন সলমন খান, প্রকাশ্যে সেই… আধার প্যান লিঙ্ক করার সময়সীমা ও আয়কর জমা দেওয়ার সময়সীমা বাড়ালো কেন্দ্র রেশন কার্ডের সাথে আধার লিংক করানো থাকলে পাবেন বিনামূল্যে সরকারের এই বিশেষ সুবিধা একসময় কলকাতা থেকে বাস চলতো লন্ডনে। পড়ুন বিস্তারিত। কলকাতা পুলিশকে তাড়া করলো করোনা আক্রা’ন্ত রোগী, ভাইরাল ভিডিও
30 বছর বয়সের পর নারীর দে*হে যে গো*পন চাহিদাগুলো হয় তা অনেক পুরুষেরই অজানা, কাউকে বলতে পারেনা নারীরা এই কথা

30 বছর বয়সের পর নারীর দে*হে যে গো*পন চাহিদাগুলো হয় তা অনেক পুরুষেরই অজানা, কাউকে বলতে পারেনা নারীরা এই কথা

নমস্কার বন্ধুরা আমাদের আজকের এই বিশেষ প্রতিবেদনটিতে আপনাদের সকলকে জানাই স্বাগত। আজ আমরা একটি গুরুত্বপূর্ণ বিষয় নিয়ে আপনাদের সাথে আলোচনা করব।আজ আপনাদের জানাব 30 বছর বয়সের পর থেকে মেয়েদের মধ্যে যে ইচ্ছাগুলো জন্ম নেয় সে সম্পর্কে। তবে এ বিষয়ে বিস্তারিত জানতে অবশ্যই করে আমাদের আজকের এই বিশেষ প্রতিবেদনটি মনোযোগ সহকারে শেষ পর্যন্ত জেনে নিন।

নারী-পুরুষ উভয়কে নিয়ে আমাদের এই জগত সংসার। আর এই জগত সংসারে নারী এবং পুরুষ উভয়েই একে অপরের উপর নির্ভরশীল। একজন আরেকজনকে ছাড়া অসম্পূর্ণ। ভগবান মানুষকে দুটি রূপের মাধ্যমে পৃথিবীতে পাঠিয়েছেন। তার মধ্যে একটি হলো পুরুষ রূপ আরেকটি হল মহিলা রূপ। আর ভগবানের তৈরি করা এই দুটি রূপ সব থেকে শ্রেষ্ঠ বলে মনে করা হয়ে থাকে। আর মহিলাদের গুণাবলীর দ্বারা আমাদের সমাজ এবং পরিবার গড়ে ওঠে সুন্দরভাবে।

মেয়েদের মনকে বোঝা সবথেকে কঠিন বিষয়। আর এই মতটিকে প্রায় সকলেই সত্যি বলে মনে করেন। তাদের উদাসীন মনোভাব বশত তাদের পরিবার ভেঙে যেতে পারে। মেয়েদের বয়স বৃদ্ধির সাথে সাথে তাদের মধ্যে অনেক কিছু পরিবর্তন আসে। মূলত 18 থেকে 20 বছর বয়সের মেয়েরা একটু লাজুক স্বভাবের হয়ে থাকে। একটি সমীক্ষার মাধ্যমে জানা গিয়েছে একটি মেয়ের 20 থেকে 30 বছর বয়স অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ একটি সময়।

20 বছর বয়স পার করার সাথে সাথে মহিলাদের বোধ শক্তির বৃদ্ধি ঘটে। আর আগামী 30 বছর পর্যন্ত তাদের এই বুদ্ধির বিকাশ ঘটতে থাকে। এই বয়সে তারা সকলের সাথে মানিয়ে গুছিয়ে সকলের খেয়াল রাখতে বেশ ভালোভাবে পারে। আর মেয়েদের 30 বছর বয়স পর্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ বয়স। 30 বছর বয়সে মেয়েদের যে স্বভাব চরিত্রের পরিচয় পাওয়া যায় তা অনেকটা চমকপ্রদ। কথাটা শুনে একটু অন্যরকম মনে হলেও এটা সত্যি আর এর পেছনে অনেক কারণ রয়েছে।

আরও পড়ুন-যে মেয়ের এই পাঁচ অঙ্গ বড় তারা সবচেয়ে বেশি ভাগ্যবান! এটি পরীক্ষিত ও প্রমাণিত, মিলিয়ে নিন

বিশের কোটা পেরিয়ে যখন তিরিশে পা দিতে চলেছেন তখন জীবনে এমন কিছু পরিবর্তন আসবে যা নিয়ে আপনাকে আগে থেকেই মানসিকভাবে প্রস্তুত থাকতে হবে। তিরিশে পা দিয়ে ও তিরিশের পরে কী কী পরিবর্তন আসবে তা জেনে নেই চলুন।সাম্প্রতিক এক সমীক্ষা বলছে, বয়সের সঙ্গে পাল্লা দিয়ে বাড়ে নারীদের শারীরিক চাহিদা। বয়স বাড়ার সাথে সাথে নারীদের যৌন আকাঙ্খা কমে বলে এতদিন যে ধারণা ছিল, তা ভুল বলে দাবি করেছে এই সমীক্ষা।

মীক্ষা বলছে, বয়স বাড়ার সঙ্গে মহিলারা নিয়মিত সময় অন্তর শারীরিক চাহিদা মেটানো আকাঙ্খায় থাকেন। নিউ ইয়র্কের মার্কেটিং ফার্ম লিপ্পি টেলর ও হেলদি ওয়েমেন ডট ও আর জি-র যৌথ উদ্যোগে করা এই সমীক্ষা আরও বলছে, বয়স্ক মহিলারা আরও ‘স্পাইসি সেক্সলাইফ’-এর চাহিদা মনের মধ্যে পোষণ করেন।

আরও পড়ুন-বিবাহিত মহিলারা ভুলেও এই পাঁচ গো*প*ন জিনিস কারোর সাথে শেয়ার করবেন না

প্রায় এক হাজার জন নারীর উপর এই সমীক্ষা চালানো হয়। ফলাফলে দেখা যায়, ৫৪ শতাংশ নারীর বয়স বাড়লে যৌনতার চাহিদা বাড়ার পক্ষে রায় দিয়েছেন। যে সমস্ত নারীদের বয়স ৪৫ থেকে ৫৫ বছর, তারাই সবথেকে বেশি শারীরিক চাহিদা নিয়ে এক্সপেরিমেন্টাল হন বলেও দেখা গেছে এই সমীক্ষায়।

নারী পুরুষ যৌনতার ব্যাপার সবসময়ই অতিরঞ্জিত একটা ব্যাপার। এই ব্যাপারে মতামতও মানুষের ভিন্ন। যৌনতার ক্ষেত্রে কখনও এরকমও শোনা যায় যে নারীদের যৌন আকাঙ্খা পুরুষদের থেকে অনেক গুণ বেশি। আবার কখনও এটাকে ভুল প্রমাণ করেও দেখানো হয়ে থাকে। কিন্তু এসব ছাড়াও যৌনতার ইতিহাস আজ থেকে নয় সেই আদিম থেকেই চলে আসছে এর ধারা। আর এখনও পর্যন্ত সারা বিশ্বব্যাপী চলছে সুস্থ এবং স্বাভাবিক যৌনতা।

আরও পড়ুন-জামা না পরেই জোরদার ফটোশুটে মাতলেন অভিনেত্রী নুসরাত, মুহূর্তেই ভাইরাল ছবি

তবে, একটা কথা মাথায় রাখা দরকার যে যৌনতা সবসময় স্বেচ্ছায় সংঘঠিত মিলন। এরূপ অন্যথা হলে সেটা আর যাইহোক সুস্থ যৌন সম্পর্ক একেবারেই নয়। ইচ্ছের বিরুদ্ধে গিয়ে কোনো নারী কোনো পুরুষের সাথে কিংবা কোনো পুরুষ কোনো নারীর সাথে যৌনতায় লিপ্ত হতে পারেননা। আর এর পাশাপাশি এটাও স্বাভাবিক যে সবার যৌন বাসনা বা আগ্রহ এক হয়না।

নারীদের কথাতেই যদি এক্ষেত্রে আসা যায় তবো দেখা যায় যে যৌনতা প্রসঙ্গে প্রত্যেক নারীর ইচ্ছে সমান হয়ে থাকেনা। কোনো কোনো নারী অত্যাধিক যৌন কাতর হয়ে থাকেন। আবার পুরুষদের ক্ষেত্রেও, কোনো কোনো পুরুষের যৌন ইচ্ছা থাকে বেশি অর্থাত্‍ যৌনতার ব্যাপারে তাদের আগ্রহ এবং যৌন মিলনের ইচ্ছা থাকে ব্যাপক।

আরও পড়ুন-চাণক্যের মতে, লোভী, মিথ্যেবাদী, অসৎ, মেয়েদের চেনার কার্যকরী দারুন উপায়

আবার কোনো কোনো নারী-পুরুষ সুস্থ যৌনতার পক্ষপাতি এবং তারা প্রয়োজন মাফিক যৌন মিলন পছন্দ করে। আবার কিছু কিছু নারী-পুরুষ যৌ’নতাকে খুবই কম মাত্রায় পছন্দ করে। অনেকের এ ব্যাপারে ভীতিও থাকে। যৌ’নতার ব্যাপার বিশেষ করে নারী, পুরুষের যৌ’নতার ব্যাপারে উত্‍সাহ এবং আগ্রহ যদি না থাকে তবে চরম পুলক আসতে পারে না।

আরও পড়ুন-প্রতিদিনের এই পাঁচ খাবার দ্রুত কমিয়ে দেয় যৌ*ন আগ্রহ বা যৌ*ন ইচ্ছা

নারীদের যৌ*নইচ্ছার সময়সীমা :

১. মেয়েদের যৌ*ন চাহিদা ছেলেদের ৪ ভাগের এক ভাগ। কিশোরী এবং টিনেজার মেয়েদের যৌ’*নইচ্ছা সবচেয়ে বেশী। ১৮ বছরের পর থেকে মেয়েদের যৌ’*ন চাহিদা কমতে থাকে, ৩০ এরপরে ভালই কমে যায়।

২. ২৫ এর উর্দ্ধে মেয়েরা স্বামীর প্রয়োজনে যৌ*নকর্ম করে ঠিকই কিন্তু একজন মেয়ে মাসের পর মাস যৌ’*নকর্ম না করে থাকতে পারে কোন সমস্যা ছাড়া।

৩. মেয়েরা রোমান্টিক কাজকর্ম যৌ*নকর্মের চেয়ে অনেক বেশী পছন্দ করে। বেশীরভাগ নারীরা গল্পগুজব হৈ হুল্লোড় করে যৌ*’নকর্মর চেয়ে বেশী মজা পায়।

৫. ভগাংকুরের মাধ্যমে অর্গ্যাজমের জন্য যৌ*নকর্মের কোন দরকার নেই।

৬. শারী*রিক মি*লনে নারীরা উ*ত্তে*জিত আর আনন্দিত হন ঠিকই কিন্তু অর্গ্যাজম হওয়ার সম্ভাবনা ১% এর চেয়েও কম।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply




© All rights reserved © 2019 bdkantho24.com